SEO GURU – পর্ব ৩

এক নজরে আগের পর্ব গুলোঃ

SEO GURU – পর্ব ১

SEO GURU – পর্ব ২

আগের পর্বে ডোমেইন নিয়ে অনেক কথা বলেছি। হয়তো অনেকে বিরক্ত হয়েছেন, আবার অনেকে ভেবেছেন যে SEO এর সাথে আবার ডোমেইন এর কি সম্পর্ক? আমি তাদের জন্য বলেছি, দয়া করে আমার পোষ্টটি ভাল করে পড়ুন, আশা করি বুঝতে পারবেন। আপনার সাইটে একবার ভিজিটর আসল কিন্তু সে আপনার সাইটের নামটি মনেই রাখতে পারল না বা কাউকে আপনার সাইটের নামটি দিতে গিয়ে কনফিউজড হয়ে পড়ল.. তখন আপনার সাইটের সার্থকতা কোথায়? আমি মনে করি বন্ধুরা যখন একে অপরের সাথে কোন ওয়েব সাইটের তথ্য বা নাম শেয়ার করে, সেটাও এক ধরনের  SEO. আসলে যারা SEO করে টাকা উপার্জন করতে চাইবেন, তাদের জন্য এটা কোন গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নয়…. কিন্তু যারা ওয়েবমাষ্টার বা সাইট ঔনার (owner) তাদের জন্য এটা অনেক গুরুত্বপূর্ন বিষয়।

যাইহোক, আমি পরের পর্ব শুরু করছি। কারও প্রয়োজন হলে বা কোন কিছু বুঝতে অসুবিধা হলে কমেন্টস এর মাধ্যমে জানাবেন।

২।ভাল এবং ফাস্ট একটি ওয়েব সার্ভারঃ

একটি ওয়েব সাইটের জন্য ভাল এবং ফাস্ট ওয়েব সার্ভার এর খুবই প্রয়োজন। কেননা, আপনার সাইটি যদি স্লো হয় তাহলে আপনার সাইটের কন্টেন্ট যতই ভাল হোক, ইউজার আপনার সাইটের উপর বিরক্ত হবে। আবার ভাল ওয়েব সার্ভার না হলে, সাইট ডাউন থাকলেও ইউজর পাবেননা। এমনকি যখন সার্চ ইঞ্জিন এর বট গুলো আপনার সাইটকে সার্ভে করতে আসবে এবং দেখবে যে আপনার সাইটটি ডাউন তখন সে আপনার সাইটকে তার লিস্টে অর্ন্তভূক্ত করতে পারবে না। সুতরাং আপনার সাইটের Ranking কমতে থাকবে। আবার সাইটি স্লো থাকলে ও যখন সার্চ ইঞ্জিন দেখবে যে সাইটি ভিজিট করতে বেশি টাইম লাগছে.. তখন সে সাইটিকে তখনকার মত ignore করবে। ফলাফল আপনি নিশ্চই বুঝতে পারছেন 🙂

৩। সঠিক ভাবে ওয়েব সাইটের টাইটেল ও মেটা ট্যাগিং :

টাইটেলঃ

আপনার সাইটটি যেই শিরোনাম দিয়ে সার্চ ইঞ্জিন এ প্রদর্শন করে চান ঠিক সেই শিরোনাম ই সাইটের টাইটেল এ লিখুন। যেমন http://yahoo.com যদি আপনার ডোমেইন হয় এবং আপনি যদি চান সার্চ ইঞ্জিন এ Yahoo লিখে সার্চ দিলে সার্চ ইঞ্জিন আপনার সাইটের টাইটেল “Yahoo!” প্রদর্শন করবে {চিত্রঃ ১}, তবে আপনি সাইটের <title></title> সেকশন এ “Yahoo!” লিখুন। ঠিক এই ভাবে <title>Yahoo!</title> {চিত্রঃ ২}

চিত্রঃ ১

yahoo

চিত্রঃ ২

মেটা ট্যাগিং:
মেটা ট্যাগ ওয়েবসাইটের হেড সেকশনের মাঝে থাকে। এর মাঝে ওয়েবসাইট বা কোন নিদির্ষ্ট পেজ এর বর্ণনা দেয়া থাকে। দেয়া থাকে নির্দিষ্ট কিছু কীওর্য়াড যার দ্বারা সার্চ ইঞ্জিনএ সার্চ দিয়ে পাওয়া যায়। এছাড়াও ওয়েব সাইটের ঔনার এর নাম, কোন ক্যারেক্টার (CHARSET) দিয়ে করা হয়েছে তা, সার্চ ইঞ্জিন কি ফলো করবে, কি করবে না .. সেই সবও দেয়া থাকে।

নিচে দুইটি ছবির {চিত্রঃ ৩ ও ৪} মাধ্যমে http://www.seoconsultants.com এই ওয়েব সাইটির মেটা ট্যাগ ও তার ফলাফল প্রদর্শন করলাম।

চিত্রঃ ৩

code

চিত্রঃ ৪

সুতরাং আপনার ওয়েব সাইটকে কি দিয়ে সার্চ করলে পাওয়া যাবে সেই সব কীওয়ার্ড গুলো হেড এর কীওয়ার্ড সেকশন ও লিখতে হবে।

সেই সার্চের ফলে আপনার ওয়েব সাইটের টাইটেল এ কী বর্ননা প্রদর্শিত হবে তা টাইটেল ও ডিসক্রিপশন সেকশন এ লিখতে হবে।

ওয়েবসাইটটি কোন ভাষায় তা সার্চইঞ্জিন কে জানিয়ে দেয়ার জন্য নিচের ট্যাগটি ব্যবহার করা হয়।

এখানে content=”en” মানে হল ওয়েব সাইটি ইংরেজীতে তৈরী। বাংলা হলে এটি হতো

যারা সার্চ ইঞ্জিন এর জন্য robot.txt ফাইল ওয়েব সার্ভারে আপলোড করেনা, তারা ইচ্ছে করলে সার্চ ইঞ্জিন গুলোতে তার ওয়েব সাইটি লিস্টেড হওয়ার জন্য মেটা ট্যাগ ব্যবহার করতে পারে। নিচে তার উদাহরন দেয়া হল।

সাধারন সার্চ ইঞ্জিন এর জন্য মেটা ট্যাগঃ

গুগল সার্চ ইঞ্জিন এর জন্য মেটা ট্যাগঃ

MSN/Bing সার্চ ইঞ্জিন এর জন্য মেটা ট্যাগঃ

এখন কিছু গুরুত্বপূর্ন তথ্য দেই। যখন কোন ওয়েবসাইটের SEO করা শুরু করবেন তখন এই তথ্যগুলো খুবই কাজে দেবে। এগুলো টাইটেল, কীওয়ার্ড ও ডিসক্রিপশন এর। বিশাল একটা টাইটেল বা অনেক বড় একটা ডিসক্রিপশন বা অনেকগুলো হিজিবিজি কীওয়ার্ড দিলেই হবে না। মেটা ট্যাগ এ শুধু মাত্র এরয়বসাইটের সাথে সমঞ্জস্যপূন্য ডিসক্রিপশন ও কীওয়ার্ড ও টাইটেল দিন। এগুলোর ম্যক্সিমাম একটা লেনন্থ আছে।নিচে বিভিন্ন সার্চ ইঞ্জিন এর ম্যক্সিমাম লেনন্থ দিলাম।
Google এর জন্য ম্যক্সিমাম লেনন্থঃ
টাইটেলে গুগল (Google) স্পেস সহ ম্যক্সিমাম ৬৯ টি ওয়ার্ড শো করতে পারে এবং ডিসক্রিপশনে স্পেস সহ সবোর্চ্চ ১৫৬ টি ওয়ার্ড শো করতে পারে।


BING/MSN এর জন্য ম্যক্সিমাম লেনন্থঃ
বিং বা এমএসএন (Bing/MSN)স্পেস সহ ম্যক্সিমাম ৬৫ টি ওয়ার্ড শো করতে পারে এবং ডিসক্রিপশনে স্পেস সহ সবোর্চ্চ ১৫০ টি ওয়ার্ড শো করতে পারে।


Yahoo! এর জন্য ম্যক্সিমাম লেনন্থঃ
ইয়াহু (Yahoo) স্পেস সহ ম্যক্সিমাম ৭২ টি ওয়ার্ড শো করতে পারে এবং ডিসক্রিপশনে স্পেস সহ সবোর্চ্চ ১৬১ টি ওয়ার্ড শো করতে পারে।


Ask এর জন্য ম্যক্সিমাম লেনন্থঃ
Ask স্পেস সহ ম্যক্সিমাম ৬৯ টি ওয়ার্ড শো করতে পারে এবং ডিসক্রিপশনে স্পেস সহ সবোর্চ্চ ৩১২ টি ওয়ার্ড শো করতে পারে।

সুতরাং যেহেতু ভিন্ন ভিন্ন সার্চ ইঞ্জিন এর জন্য ভিন্ন ভিন্ন সাইট বানানো সম্ভব নয় সেহেতু SEO করার আগে সব সার্চ ইঞ্জিন এর জন্য স্টান্ড্যার্ড এমন লেনন্থ সিলেক্ট করুন।
আজ এ পর্যান্তই। পরের পর্ব দিতে কয়েকদিন দেরী হতে পারে। আশা করি সাথেই থাকবেন।ভালো থাকবেন। 🙂

[ বিঃ দ্রঃ আমার অনুমতি ব্যাতিত এই পোষ্ট অন্য কোথায় প্রকাশ করা সম্পূর্ন নিষিদ্ধ। ]

2 Responses so far.

  1. Potho Koli says:

    Ek jaygay eto kotha likhle kichhu bojha jay???? :@

Leave a Reply

You must be logged in to post a comment.